মিঠাপুকুরে গৃহবধুকে অপহরণ মামলার পলাতক আসামী জুয়েলের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

শেয়ার করুন

রংপুর অফিস:

রংপুরের মিঠাপুকুরে ২১ বছর আগে গৃহবধু সেলিনা বেগমকে অপহরন করে গুম করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আসামী মাজাহারুল ইসলাম জুয়েলকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত।

আজ রোববার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত ১ এর বিচারক মোস্তফা কামাল এ রায় প্রধান করেন।

মামলার বিবরনে জানা গেছে ২০০১ সালের ৭ অক্টোবর মিঠাপুকুর উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের মজনু মিয়ার স্ত্রী সেলিনা বেগমকে একই গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে মাজহারুল ইসলাম জুয়েল মজনু মিয়ার স্ত্রীকে তার অনুপস্থিতির সুযোগে রাত ৮ টার দিকে অস্ত্রের মুখে অপহরন করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় পরের দিন ৮ অক্টোবর তারিখে মজনু মিয়া বাদী হয়ে মিঠাপুকুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে।

পুলিশ তদন্ত শেষে আসামী জুয়েলের নামে চার্জসীট দাখিল করে। কিন্তু ভিটিম গৃহবধু সেলিনা বেগমকে পুলিশ উদ্ধার করতে পারে নাই। মামলায় ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে আসামী মাজহারুল ইসলাম জুয়েলকে দোষি সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দেন।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা কারী আইনজিবী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিশেষষ পিপি রফিক হাসনাইন এ্যাডভোকেট জানান রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তোষ্ট বলে জানান তিনি।

এম২৪নিউজ/আখতার

Leave a Reply