মিঠাপুকুরে হাঁড়িভাঙ্গা আমের হাটে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগ

শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার:

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় হাঁড়িভাঙ্গা আমের সবচেয়ে বড় হাট পদাগঞ্জ বাজার। প্রতিদিনই এখানে আমের হাট বসে। হাট ইজারাদার অতিরিক্ত হারে টোল আদায় করায় ক্রেতা-বিক্রেতাদের মাঝে দেখা দিয়েছে ক্ষোভ।

সরেজমিনে পদাগঞ্জ হাটে গিয়ে দেখা গেছে, হাঁড়িভাঙ্গা আমে ভরে গেছে হাটের প্রতিটি জায়গা। আম ব্যবসায়ী ও বিক্রেতারা অভিযোগ করে বলেন, ইজারাদার অতিরিক্ত টোল আদায় করছেন। সরকার নির্ধারিত টাকার চেয়ে বেশি করে আদায় করা হচ্ছে। এ নিয়ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে ক্রেতা-বিক্রেতাদের মাঝে। অনেক সময় বাকবিতন্ডায়ও জড়িয়ে পড়ছেন কেউ কেউ। তাই, মাঝে মাঝে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টিও হচ্ছে। হাট ইজারাদার কামরুজ্জামান প্রিন্স স্থানীয়দের নিয়ে গড়ে তুলেছেন একটি সিন্ডিকেট। এই সিন্ডিকেটে রয়েছেন প্রভাবশালীরা। তাই, কেউ অতিরিক্ত টোল আদায় নিয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পাননা।

সরকারী নির্দেশনা মতে, ট্রাক প্রতি ২০ টাকা নেওয়ার নিয়ম থাকলেও আদায় করা হচ্ছে দুই থেকে তিন হাজার টাকা। দোকান প্রতি ৭ টাকার স্থলে ২০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। ১০ মণ আমের একটি ঝুড়িতে ১৫ টাকার নেওয়ার নিয়ম রয়েছে। কিন্তু মাত্র ২০ কেজি ওজনের একটি ক্যারেটে আদায় করা হচ্ছে ১০ টাকা করে।

নিজের বাগানের হাঁড়িভাঙ্গা নিয়ে হাটে এসেছেন রহিম উদ্দিন (৫৫)। তিনি বলেন, ‘মোর জীবনে এনকা বেশি টোল নেওয়া দেকো নাই (দেখিনি)। ইজারাদার জোর করি বেশি করি ট্যাকা নেওচে। এক মণ আম বেচতে টোল দিব্যার নাগোচে ২০ ট্যাকা।’ অপর আম চাষি কলিম মোল্লা (৬২) বলেন, ‘হাটোত আম বেচার চেয়ে বাড়িত বসি কম দামোত বেচায় ভালো আছিলো।’

আম ব্যবসায়ী ও পাইকার আবদুর রহমান (৬০) বলেন, ‘ক্রেতা ও বিক্রেতা দুই পক্ষের কাছেই টাকা আদায় করছেন ইজারাদার। টাকাও বেশি করে নেওয়া হচ্ছে। এটা সর্ম্পূণ অন্যায়। এর একটা বিহিত হওয়া দরকার।’
হাট ইজারাদার কামরুজ্জামান প্রিন্স বলেন, ‘অতিরিক্ত টোল আদায় করা হচ্ছেনা। যথা নিয়মেই ব্যবসায়ীদের কাছে টাকা আদায় করা হচ্ছে।’

মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাতেমাতুজ জোহরা বলেন, ‘এ ধরনের অভিযোগের বিষয়ে জানতে পেরেছি। ইতোমধ্যে হাট ইজারাদারের সাথে কথা বলে অতিরিক্ত টোল আদায় না করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। অতিরিক্ত টোল নেওয়া হচ্ছেনা বলে ইজারাদার আমাকে জানিয়েছেন। তারপরও যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে, তাহলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

এম২৪নিউজ/আখতার

Leave a Reply