কাটা গলা নিয়ে গাছের নিচে বসেছিল ইজিবাইক চালক

শেয়ার করুন

নিউজ ডেস্ক:

পঞ্চগড়ে ইজিবাইক ছিনিয়ে নিতে চালক লাবুর গলা কেটে পালিয়েছে দূর্বৃত্তরা। পরে ওই চালককে সড়কের পাশের গাছের নিচ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে । 

লাবুর বাড়ি সদর উপজেলার চাকলা ইউনিয়নের শিংরোড এলাকার ভুজারিপাড়া গ্রামে। সে ওই গ্রামের মঞ্জুরুলের ছেলে। সে রতনিবাড়ি এলাকার মাসুদ রানা নামে এক ইজিবাইক মালিকের কাছ থেকে ইজিবাইক নিয়ে চালাত। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঘটনাটি ঘটে সদর উপজেলার ধাক্কামাড়া ইউনিয়নের আমতলা কাজিপাড়া এলাকায়।

স্থানীয় ধাক্কামাড়া ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম বলেন, শনিবার রাত ৮টার দিকে আমার মোবাইল ফোনে কল আসে একটি ছেলে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে আমতলা কাজি ফার্মস এলাকায় । তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রথমে পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিসে খবর দিয়েছি। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে ওই তরুণকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে দেই।

এদিকে ঘটনার খবর শুনে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন পঞ্চগড় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম ও ভাইস চেয়ারম্যান কাজি আল তারিক। এ সময় ওই ইজিবাইক চালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় শনিবার রাতেই রংপুর মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

ইজিবাইকের মালিক মাসুদ রানা জানান, ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যে তিনজন যুবক যাত্রী বেশে ইজিবাইকে উঠে । পরে আমতলা কাজিপাড়া এলাকায় তাকে মারধর করে তার গলা কেটে পালিয়ে যায় । শনিবার রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাবুর গলায় অপারেশন হয়েছে । বর্তমানে অবস্থা উন্নতির দিকে।

পঞ্চগড় সদর থানার ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন বলেন, ঘটনার খবর শুনে আমি পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ছুটে গিয়েছি। ঘটনার পরই আমরা এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছি। শনিবার রাত ১০টার দিকে আমতলা এলাকা থেকে ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়েছে। পরবর্তীতে ইজিবাইক চালক সুস্থ হয়ে উঠার পর আমরা দুর্বৃত্তদের ধরতে অভিযান পরিচালনা করব। সূত্র: ডেইলী বাংলাদেশ

এম২৪নিউজ/আখতার