রংপুরে ধর্ষণের অভিযোগে ঈমাম গ্রেফতার

শেয়ার করুন

নিউজ ডেস্ক:

রংপুরের তারাগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় আতিকুল ইসলাম (৩০) নামে মসজিদের এক ঈমামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে দশ বছরের এক বাকপ্রতিবন্ধী শিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে তারাগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন।

তিনি জানান, বুধবার (৪ নভেম্বর) সকালে তারাগঞ্জের কুর্শা ইউনিয়নের ঝাকুয়াপাড়া গ্রামে স্থানীয় একটি মসজিদের মুক্তবে পড়তে যান প্রতিবন্ধী শিশুটি। সেখানে বিশ্রাম ঘরে ওই শিশুকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে ইমাম আতিকুল ইসলাম। এঘটনায় শিশুটির পরিবার থেকে অভিযোগ দায়ের পর মসজিদের ইমাম আসামি আতিকুলকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আতিকুল ইসলাম উপজেলার হাড়িয়ারকুঠি ইউনিয়নের মেনানগর বড় জুম্মাপাড়া গ্রামের মৃত ওসমান গণির ছেলে। দেড় বছর আগে ঝাকুয়াপাড়া গ্রামের মসজিদে ইমামের দায়িত্ব নিয়ে যোগ দেন। তিনি সেখানে নামাজে ইমামতি করার পাশাপাশি সকালে করে স্থানীয় শিশু-কিশোরদের নিয়মিত আরবি শিক্ষা পাঠ দান করে আসছিলেন।

এদিকে নির্যাতিতা শিশুর বাবার দাবি, তার মেয়েকে প্রতিদিনের মসজিদের মক্তবে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু বুধবার মসজিদের ইমাম তার বিশ্রাম কক্ষে ডেকে নিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় হাত দেন ও ধর্ষণ করেন। পরে স্থানীয় লোকজন ওই শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয় তারাগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান।

ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মাহমুদুর রহমান জানিয়েছে, শিশুটির ওপর নির্যাতনের প্রাথমিকভাবে কিছু আলামত পাওয়া গেছে। তবে ফরেনসিক বিভাগীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সঠিক তথ্য জানা যাবে।

এদিকে ওসি ইসমাইল হোসেন আরও জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন তদন্ত চলছে। পুরো তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত ধর্ষণের ব্যাপারে বেশি কিছু বলা যাচ্ছে না।

এম২৪নিউজ/আখতার