বদরগঞ্জে ২২ ঘণ্টা পর ভেসে উঠলো স্কুলছাত্রের লাশ

শেয়ার করুন

নিউজ ডেস্ক:

রংপুরের বদরগঞ্জে বন্ধুদের সঙ্গে নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হওয়া স্কুলছাত্র রমজান আলীর লাশ ২২ ঘণ্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। ডুবে যাওয়ার স্থান থেকে সামান্য দূরেই ভেসে উঠে মরদেহটি। অথচ ফায়ার সার্ভিসের দুটি ডুবুরি দল দীর্ঘ সময় পানির তলদেশে তল্লাশির পরেও তাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) রাত ১০টার দিকে উপজেলার লোহানীপাড়া ইউনিয়নের পেশকারপাড়ায় যমুনেশ্বরী নদী থেকে রমজানের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে বুধবার দুপুরে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হন ওই এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে রমজান আলী। সে কাঁচাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

ঘটনার পর থেকে নদীর পাড়ে স্বজন শুভাকাঙ্ক্ষীসহ পাড়া প্রতিবেশী শত শত মানুষ জড়ো হয়। গত দুইদিন ধরে নদীর পাড়ে দাঁড়িয়ে থেকেও বুকের ধনকে না পাওয়ার আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন পরিবার ও স্বজনরা। এদিকে সন্তানকে জীবিত উদ্ধার করতে না পারায় মুমূর্ষু অবস্থায় রয়েছেন রমজানের বাবা রফিকুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে ডুবে যাওয়া স্থানের প্রায় ২০ মিটার দূরে ভেসে ওঠে রমজানের মরদেহ।

এলাকাবাসী আব্দুস সালাম ও আমজাদ হোসেন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ঘটনাস্থলে দক্ষ ডুবুরি দল দিয়ে তল্লাশি করলে হয়তো তাৎক্ষণিকভাবে রমজানকে পাওয়া যেত।

স্বজন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুর একটার দিকে রমজান আলী তার বন্ধুদের সঙ্গে যমুনেশ্বরী নদীতে গোসল করতে নামে। তার পরনে ছিল জিন্সের প্যান্ট। সাঁতার কম জানায় নদীর প্রবল স্রোতে রমজান আলী পানিতে তলিয়ে যায়। এসময় তার অপর বন্ধু সাজিতকে স্থানীয়রা এসে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে বদরগঞ্জ ও রংপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ডুবুরিদল ওইদিন তাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে লোহানীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাকিব হোসেন দলু শাহ বলেন, নিখাঁজ হওয়া স্থানের সামান্য দূরে লাশ ভেসে উঠে। গতকাল থেকে স্বজন ও আত্মীয়রা নদীর তীরে সন্তানকে ফিরে পাওয়ার অপেক্ষা করছিল। অবশেষে সেই অপেক্ষার অবসান হলো মৃত রমজান আলীর মরদেহ ভেসে ওঠার মাধ্যমে। বার্তা২৪

এম২৪নিউজ/আখতার

Leave a Reply