রংপুরে কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে মজুদ রাখা ওএমএসের ৪ টন চাল উদ্ধার

শেয়ার করুন

রংপুর অফিস:

রংপুরে কালোবাজারে বিক্রির উদ্দেশ্যে মজুদ রাখা খোলা বাজারে চাল বিক্রির (ওএমএস) প্রায় ৪ টন চাল উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধার আগে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে নগরীর পানি উন্নয়ন বোর্ড সড়ক সংলগ্ন ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম মুন্না’র গুদামে র‌্যাব, পুলিশ, খাদ্য অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসন যৌথ অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক বরাদ্দকৃত খোলা বাজারে চাল বিক্রির ৩০ কেজি বস্তার ১১৫ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়।

অভিযানে রংপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত বিন কুতুব, সদর উপজেলা খাদ্য গুদামের ইনচার্জ আরিফ হোসেনসহ র‌্যাব ও পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্তিত ছিলেন। এ ঘটনায় উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অমূল্য চন্দ্র সরকার বাদী হয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত বিন কুতুব বলেন, অস্বচ্ছল পরিবারের জন্য সরকার স্বল্প মূল্যে খোলা বাজারে চাল বিক্রির উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। একটি অসাধু চক্র সেই চাল কালোবাজারে বিক্রি করে সরকারের উদ্যোগ বাস্তবায়ন ব্যহত করছে। আমরা ১১৫ বস্তা চাল উদ্ধার করেছি। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্তে বেরিয়ে আসবে এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত রয়েছে।

এম২৪নিউজ/আখতার

Leave a Reply