বাউবিতে ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ: স্বাধীনতার রাজনৈতিক ঘোষণা’ শীর্ষক আলোচনা সভা

খবর বিজ্ঞপ্তির:

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ: স্বাধীনতার রাজনৈতিক ঘোষণা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা ৭ মার্চ ২০২৪ বৃহস্পতিবার বাউবির গাজীপুরস্থ বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা সম্মেলন ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাউবি’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তাঁর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের মাধ্যমে সমগ্র জাতিকে বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে একত্রিত করেছিলেন। সেই জাতীয়তাবাদ এবং দেশপ্রেম জাগ্রত করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে সোনারবাংলা বাস্তবায়ন করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর ভাষণের মাধ্যমে আমরা মূখ্যভাবে জাতীয়তাবাদের শিক্ষা পাই। বাঙালি জাতীয়তাবাদকে বুকে ধারণ করে আমাদের আজকের বংলাদেশকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলায় রূপান্তরিত করতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দর্শন মনে প্রাণে ধারণ করে ব্যক্তিস্বার্থের উর্ধ্বে থেকে সকলকে আন্তরিক ও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। সকলের ঐক্যবদ্ধতায় আমরা ১৯৭১ সালে মাত্র নয় মাসে বিজয় ছিনিয়ে এনেছি। বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেসব উন্নয়ন পরিকল্পনা ও উদ্যোগ নিয়েছেন সকলের ঐক্যবদ্ধতার সাধ্যমে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা সম্ভব। এতে স্বাধীনতার সুফল পাওয়া যাবে এবং স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়ন সম্ভব হবে। সোনারবাংলা বাস্তবায়িত হলে স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মত্যাগকারীদের প্রতি পূন্য শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. নাসিম বানু, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. মাহবুবা নাসরীন ও ট্রেজারার অধ্যাপক মোস্তফা আজাদ কামাল।

আলোচনা অনুষ্ঠানের আলোচক বাউবির স্কুল অব এডুকেশনের অধ্যাপক মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বাঙালি জাতিকে শুধু স্বাধীনতা যুদ্ধে অনুপ্রাণিত করেনি একই সাথে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধকে নৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠা করে। অপর আলোচক ওপেন স্কুলের অধ্যাপক ড. মোঃ ইকবাল হুসাইন, বিশ্বের আরও অনেক বিখ্যাত ভাষণের সাথে তুলনা করে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ কেন অনন্য ও অসাধারণ তা আলোকপাত করেন।

বাউবি’র শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. কে.এম. রেজানুর রহমান এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মো: শহীদুর রহমান। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বাউবি’র রেজিস্ট্রার মহাঃ শফিকুল আলম। সঞ্চালনায় ছিলেন সামাজিক বিজ্ঞান ও ভাষা স্কুলের সহকারী অধ্যাপক নূর মোহাম্মদ।

অনুষ্ঠানে বাউবি’র কয়েক শতাধিক শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আঞ্চলিক ও উপ-আঞ্চলিক কেন্দ্রের কর্মকর্তা কর্মচারী, টিউটর, সমন্বয়কারী ও শিক্ষার্থীরা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন।

(ড. আ.ফ.ম মেজবাহ উদ্দিন)
পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত)

এম২৪নিউজ/আখতার

Leave a Reply